বৃহস্পতিবার, ২১ জানুয়ারী ২০২১, ০৪:৫০ পূর্বাহ্ন

আসামি ধরতে গিয়ে হামলার শিকার আরএমপির পুলিশের দুই সদস্য

অনলাইন ডেক্স :
  • প্রকাশিত সময় : মঙ্গলবার, ২২ ডিসেম্বর, ২০২০
  • ২ পাঠক পড়েছে

রাজশাহীতে মাদক মামলার আসামি ধরতে গিয়ে হামলার শিকার হয়েছেন দুই পুলিশ সদস্য। সোমবার বেলা পৌনে ২টার দিকে রাজশাহী নগরের খড়খড়ি বাইপাস এলাকায় হমালার শিকার হন। এ সময় ধাক্কাধাক্কি করতে গিয়ে এক মাদক ব্যবসায়ীও আহত হয়েছেন।
হামলায় আহত দুই পুলিশ সদস্য হলেন রাজশাহী মেট্রোপলিটন পুলিশের চন্দ্রিমা থানার সহকারী উপরিদর্শক (এএসআই) মো. আবদুল সবুর (৩১) ও কনস্টেবল শাহানুর আলম (৩২)। সবুর হাতে ও পায়ে আঘাত পেয়েছেন, আর শাহানুরের গাল কেটে গেছে। দুজনের শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাতের চিহ্ন আছে। তাঁরা রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। এ ঘটনায় মো. মতিন (২৬) নামের এক মাদক ব্যবসায়ী আহত হয়েছেন। তাঁর বাড়ি নগরীর চন্দ্রিমা থানার ললিতাহার এলাকায়।
পুলিশ সূত্রে জানা যায়, নগরের খড়খড়ি বাইপাস এলাকায় একটি পরিত্যক্ত বাড়িতে মাদক সেবনকারী ও ব্যবসায়ীরা অবস্থান করছিলেন। খবর পেয়ে চন্দ্রিমা থানা-পুলিশের একটি দল বাইপাস এলাকায় মাদকবিরোধী অভিযানে যায়। অভিযানের সময় ওই পরিত্যক্ত বাড়িতে আগে এএসআই সবুর ও কনস্টেবল শাহানুর প্রবেশ করেন। এ সময় পাঁচ থেকে ছয়জন পুলিশের ওপর লাঠি নিয়ে হামলা চালান। একপর্যায়ে পুলিশের অন্য সদস্য সেখানে পৌঁছালে তাঁরা পালিয়ে যান। তবে পুলিশ মাদক মামলার আসামি মো. মতিনকে আটক করেছে। পুলিশের সঙ্গে ধস্তাধস্তির একপর্যায়ে ঘরের দেয়ালে লেগে মতিনের মাথা ফেটে যায়। তাঁকেও রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।
চন্দ্রিমা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সিরাজুম মনির বলেন, মাদক মামলার আসামি মতিনের বিরুদ্ধে থানায় একাধিক মামলা আছে। তাঁর কাছ থেকে ২০ গ্রাম হেরোইন উদ্ধার করা হয়েছে। এ ঘটনায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে ও পুলিশের ওপর হামলার ঘটনায় মামলা হবে। এই মামলায় বাকি আসামিদেরও দ্রুত গ্রেপ্তার করা হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর
Design and Developed by DONET IT
SheraWeb.Com_2580