বুধবার, ২০ জানুয়ারী ২০২১, ০৬:১৭ পূর্বাহ্ন

করোনায় মৃত্যু ও নতুন রোগী শনাক্তের হার বেড়েছে

অনলাইন ডেক্স :
  • প্রকাশিত সময় : রবিবার, ২৯ নভেম্বর, ২০২০
  • ১ পাঠক পড়েছে

গত সাতদিনে (৪৮তম সপ্তাহ) ৪৭তম সপ্তাহের তুলনায় করোনায় মৃত্যুর হার ৩০ শতাংশ ও নতুন রোগী শনাক্তের হার ৪ শতাংশ বেড়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় মৃত্যুর সংখ্যা বেড়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আরও ৩৬ জনের মৃত্যু এবং আক্রান্ত হয়েছেন ১৯০৮ জন। এ নিয়ে এ পর্যন্ত মৃত্যুর সংখ্যা ৬৫৮০ এবং আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়াল ৪ লাখ ৬০ হাজার ৬১৯ জনে। গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হওয়া ২২০৯ জনসহ এখন পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন ৩ লাখ ৭৫ হাজার ৮৮৫ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় ১৪ হাজার ১২টিসহ এ পর্যন্ত নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে ২৭ লাখ ৪৩ হাজার ৫৯২টি। গত ২৪ ঘণ্টায় নমুনা পরীক্ষার তুলনায় রোগী শনাক্তের হার ১৩ দশমিক ৬২ শতাংশ। আর রোগী শনাক্ত তুলনায় সুস্থতার হার ৮১ দশমিক ৬০ শতাংশ এবং মৃত্যুর হার ১ দশমিক ৪৩ শতাংশ।

শনিবার পাঠানো স্বাস্থ্য অধিদফতরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) অধ্যাপক ডাঃ নাসিমা সুলতানা স্বাক্ষরিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে। বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, ২৪ ঘণ্টায় মারা যাওয়া ৩৬ জনের মধ্যে ২৮ জন পুরুষ এবং ৮ জন নারী। বয়স বিশ্লেষণে দেখা যায়, তাদের মধ্যে ৬০ বছরের বেশি বয়সী ২৩ জন, ৫১ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে ১০ জন, ৪১ থেকে ৫০ বছরের মধ্যে ১ জন, ২১ থেকে ৩০ বছরের মধ্যে ১ জন এবং ১১ থেকে ২০ বছরের মধ্যে ১ জন রয়েছেন। বিভাগ বিশ্লেষণে দেখা যায়, ঢাকা বিভাগে ৩০ জন, চট্টগ্রামে ১ জন, বরিশালে ১ জন এবং রংপুরে ১ জন রয়েছেন।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে স্বাস্থ্য অধিদফতর আরও জানায়, গত ২৪ ঘণ্টায় আইসোলেশনে রাখা হয়েছে ১৭১ জনকে। বর্তমানে আইসোলেশনে আছেন ১২ হাজার ৮০৫ জন। ২৪ ঘণ্টায় আইসোলেশন থেকে ছাড়া পেয়েছেন ৮২ জন, এখন পর্যন্ত ছাড়া পেয়েছেন ৭৮ হাজার ৯৯ জন। এখন পর্যন্ত আইসোলেশন করা হয়েছে ৯০ হাজার ৮৩৪ জনকে।

প্রাতিষ্ঠানিক ও হোম কোয়ারেন্টাইন মিলে ২৪ ঘণ্টায় কোয়ারেন্টাইন করা হয়েছে ৬৫৭ জনকে। কোয়ারেন্টাইন থেকে গত ২৪ ঘণ্টায় ছাড়া পেয়েছেন ৬৪৭ জন, এখন পর্যন্ত ছাড়া পেয়েছেন ৫ লাখ ৩৬ হাজার ৮৮৫ জন। এখন পর্যন্ত কোয়ারেন্টাইন করা হয়েছে ৫ লাখ ৭৭ হাজার ১১১ জনকে। বর্তমানে কোয়ারেন্টাইনে আছেন ৪০ হাজার ৮৮৩ জন।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে, ২৮ নবেম্বর পর্যন্ত করোনায় মোট মৃতের মধ্যে ঢাকা বিভাগে ৩৫১৭ জন, যা মোট মৃতের ৫৩ দশমিক ৪৫ শতাংশ, চট্টগ্রাম বিভাগে ১২৫৪ জন, যা মোট মৃতের ১৯ দশমিক ১৯ শতাংশ, রাজশাহী বিভাগে ৪০১ জন, যা মোট মৃতের ৬ শতাংশ, খুলনা বিভাগে ৪৯৫ জন, যা মোট মৃতের ৭ দশমিক ৫২ শতাংশ, বরিশাল বিভাগে ২১৯ জন, যা মোট মৃতের ৩ দশমিক ৩৩ শতাংশ, সিলেট বিভাগে ২৬৪ জন, যা মোট মৃতের ৪ শতাংশ, রংপুর বিভাগে ২৯৮ জন, যা মোট মৃতের ৪ দশমিক ৫৩ শতাংশ এবং ময়মনসিংহ বিভাগে ১৩২ জন, যা মোট মৃতের ২ দশমিক শতাংশ।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে আরও জানানো হয়, ২৮ নবেম্বর পর্যন্ত করোনায় যারা মারা গেছেন, তাদের বয়স বিশ্লেষণে, শূন্য থেকে ১০ বছরের মধ্যে ৩১ জন, যা মোট মৃত্যুর শূন্য ৪৭ শতাংশ, ১১ থেকে ২০ বছরের মধ্যে ৫৩ জন, যা শূন্য ৮১ শতাংশ, ২১ থেকে ৩০ বছরের মধ্যে ১৪৭ জন, যা ২ দশমিক ২৩ শতাংশ, ৩১ থেকে ৪০ বছরের মধ্যে ৩৪২ জন, যা ৫ দশমিক ২০ শতাংশ, ৪১ থেকে ৫০ বছরের মধ্যে ৭৯৫ জন, যা ১২ শতাংশ, ৫১ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে ১৭২০ জন, যা ২৬ দশমিক ১৪ শতাংশ এবং ৬০ বছরের বেশি বয়সী ৩৪৯২ জন, যা ৫৩ শতাংশ।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে আরও জানানো হয়, সারাদেশে করোনা রোগীদের জন্য সাধারণ শয্যা সংখ্যা ১১ হাজার ৩৩৮টি, সাধারণ শয্যায় ভর্তি রোগীর সংখ্যা ২৯৯৮ জন এবং খালি রয়েছে ৮৩৪০টি শয্যা। দেশে মোট আইসিইউ শয্যা রয়েছে ৫৪৭টি, ভর্তিকৃত রোগী ৩০৭ জন এবং খালি রয়েছে ২৪০টি আইসিইউ শয্যা। দেশে মোট অক্সিজেন সিলিন্ডার রয়েছে ১৩ হাজার ৬০৩টি, হাইফ্লো ন্যাজাল ক্যানুলা রয়েছে ৬০৪টি এবং অক্সিজেন কনসেনট্রেটর রয়েছে ৩৯৯টি।

গত ২৪ ঘণ্টায় ঢাকা বিভাগে ১৬৭১ জন, চট্টগ্রামে ৪২৪ জন, রাজশাহীতে ৪০ জন, খুলনায় ১৬ জন, রংপুরে ৭ জন, সিলেটে ২৪ জন ও ময়মনসিংহে ৯ জন সুস্থ হয়েছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর
Design and Developed by DONET IT
SheraWeb.Com_2580