সোমবার, ১৮ জানুয়ারী ২০২১, ১২:৩৭ পূর্বাহ্ন

করোনা মোকাবেলায় সরকারের দৃশ্যমান প্রস্তুতি নেই ॥ জি এম কাদের

অনলাইন ডেক্স :
  • প্রকাশিত সময় : বুধবার, ২৫ নভেম্বর, ২০২০
  • ২ পাঠক পড়েছে

করোনা প্রতিরোধে সরকারীভাবে প্রতিটি মানুষকে বিনামূল্যে ভ্যাকসিন দেয়ার দাবি জানিয়েছেন বিরোধী দলের উপনেতা ও জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান গোলাম মোহাম্মদ কাদের।

বুধবার দুপুরে জাতীয় পার্টি চেয়ারম্যান-এর বনানী কার্যালয় মিলনায়তনে বাংলাদেশ বেসরকারী শিক্ষক-কর্মচারী ফোরাম নেতৃবৃন্দের সঙ্গে মতবিনিময় কালে তিনি এ কথা বলেন। এসময় দলের কেন্দ্রীয় নেতারা উপস্থিত ছিলেন। ফোরাম নেতারা তাদের দাবি দাওয়া পূরণে বিরোধী দলের সহযোগিতা কামনা করেন।

প্রতিটি মানুষকে বিনামূল্যে করোনা ভাইরাস প্রতিরোধের ভ্যাকসিন দেয়ার দাবি জানিয়ে তিনি বলেন, দেশের হতদরিদ্র মানুষের পক্ষে পয়সা খরচ করে ভ্যাকসিন নেয়া হয়তো সম্ভব হবেনা। তাই সবার জন্য বিনামূল্যে করোনার ভ্যাকসিন নিশ্চিত করতে হবে। বলেন, দেশের মানুষ ভ্যাকসিনের ব্যাপারে পরিচ্ছন্ন ধারণা চায়, দেশের মানুষ করোনা প্রতিরোধে ভ্যাকসিনের ব্যাপারে আস্থশীল হতে চায়। সরকারকে এ ব্যাপারে দায়িত্বশীল ভূমিকা রাখতে হবে।

শীতের শুরুতেই ইউরোপ-আমেরিকাসহ বিভিন্ন দেশে করোনার প্রকোপ বেড়ে যাচ্ছে একথা উল্লেখ করে সাবেক এই মন্ত্রী বলেন, ইতোমধ্যে বাংলাদেশেও করোনার প্রকোপ বেড়ে যাচ্ছে। প্রতিদিন আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা বাড়ছে পাল্লা দিয়ে। কিন্তু দৃশ্যমান প্রস্তুতি নেই করোনা মোকাবেলায়।

তিনি বলেন, করোনা ইস্যুতে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রীরা বলেন প্রাণঘাতি এই ব্যাধির ঝাপটা সামাল দিতে সকল প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে। কিন্তু ঢাকা শহরে টাকা খরচ করেও বেসরকারী হাসপাতালে লাইফ সার্পোট মিলছেনা। করোনা আক্রান্ত রোগীদের কারো শ^াসকষ্ট হলে হাহাকার শুরু হয়ে যায়। বাবার চোখের সামনে সস্তান শ^াস কষ্টে মারা যায়। কিন্তু কিছুই করার থাকেনা।

বলেন, প্রতিটি হাসপাতালে চিকিৎসা সেবা ফ্রি করে দিতে হবে। ঢাকার বাইরে সরকারী হাসপাতালে করোনা চিকিৎসা সেবা নেই বললেই চলে। শ^াসকষ্ট হলে অক্সিজেন সহায়তা মিলছেনা। হাজার হাজার কোটি টাকা ব্যয়ে বিভিন্ন প্রকল্প বাস্তবায়ন করা হয় কিন্তু মানুষের জীবন বাঁচাতে প্রয়োজনীয় দৃশ্যমান উদ্যোগ নেই।

মান সম্মত শিক্ষা নিশ্চিত করতে শিক্ষা ব্যবস্থা জাতীয়করণ জরুরী উল্লেখ করে জি এম কাদের বলেন, প্রাথমিক পর্যায়ে শিক্ষা সমমান হলে অবশ্যই ইবতেদায়ীকে জাতীয়করণ করতে হবে। তিনি দুঃখ প্রকাশ করে বলেন, ধনীদের সন্তানরা শিক্ষায় যে সুবিধা ভোগ করে, গরীব মানুষের সন্তানরা সেই সুযোগ পায়না। তাই দেশের বৈষম্য দূর হয়না। বৈষম্যহীন দেশ গড়তে সকল শিক্ষার্থীর জন্য সমান সুযোগ নিশ্চিত করতে হবে।

শিক্ষাকে জাতীয়করণ করে প্রয়োজনে বেসরকারী শিক্ষকদের বিসিএস পরিক্ষায় অংশ নিতে সুযোগ দিতে হবে এমন দাবি জানিয়ে তিনি বলেন, যারা উত্তীর্ণ হবে তারা সরকারী সুযোগ পাবে। যে সকল শিক্ষক উত্তীর্ণ হতে পারবেনা তারা পূর্বের স্কেলে সুযোগ পেয়ে পুনরায় যাতে পরিক্ষায় অংশ নিতে পারে সে ব্যবস্থা করতে হবে।

এসময় জাতীয় পার্টি মহাসচিব জিয়াউদ্দিন আহমেদ বাবলু বলেন, যতই পদ্মা সেতু আর ফ্লাইওভার নির্মাণ করা হোক শিক্ষার মানোন্নয়ন না হলে দেশের প্রকৃত উন্নয়ন সম্ভব নয়।

তিনি বলেন, জাপার প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ-ই প্রথম পঞ্চম শ্রেনী পর্যন্ত বিনামূল্যে পাঠ্য বই বিতরণ করেছিলেন। তিনি শিক্ষা মন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণ করে বলেন, বর্তমান শিক্ষা ব্যবস্থা যদি সার্টিফিকেট সর্বস্ব হয়, তাহলে প্রকৃত শিক্ষা ব্যবস্থা চালু করছেন না কেন? বলেন, শিক্ষা ব্যাবস্থায় অটো প্রমোশন কখনোই কাম্য হতে পারেনা। লটারীর মাধ্যমে ছাত্র ভর্তির প্রক্রিয়া সুফল বয়ে আনবে না।

এসময় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য সুনীল শুভরায়, যুগ্ম মহাসচিব ফখরুল আহসান শাহজাদা, সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ হেলাল উদ্দিন, যুগ্ম সাংগঠনিক সম্পাদক শরফুদ্দিন আহমেদ শিপু। বাংলাদেশ বেসরকারী শিক্ষক-কর্মচারী ফোরাম-এর সভাপতি- মোঃ সাঈদুল হাসান সেলিম, মহাসচিব- রেহান উদ্দিন, রফিকুল ইসলা, হাফিজুর রহমান, আব্দুর রহমান, দেলোয়ার হোসেন আজিজি, হারুন অর রশীদ প্রমুখ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর
Design and Developed by DONET IT
SheraWeb.Com_2580