সোমবার, ১৮ জানুয়ারী ২০২১, ১২:০৪ পূর্বাহ্ন

টংগিবাড়ীতে  ইলিশ ধরায় ১০ জেলেকে জেল জড়িমানা।

অনলাইন ডেক্স :
  • প্রকাশিত সময় : বৃহস্পতিবার, ২২ অক্টোবর, ২০২০
  • ১ পাঠক পড়েছে

মুন্সিগঞ্জের টংগিবাড়িতে মা ইলিশ ধরার অপরাধে ৯ জেলেকে ১৫ দিন করে কারাদণ্ড ও এক ক্রেতাকে ইলিশ মজুদের অপরাধে ৫ হাজার টাকা জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত।বৃহস্পতিবার(২২অক্টোবর)ভোরে উপজেলার হাসাইল-বানারী ইউনিয়নের গারুরগাঁও এলাকায় পদ্মা নদীতে মা ইলিশ আহরণের সময় এদেরকে আটক করা হয়। পাশাপাশি হাসাইল এলাকায় অভিযান চালিয়ে একটি বাড়ি থেকে প্রায় ১৫০ কেজি ইলিশসহ ১জনকে আটক করে ভ্রাম্যমাণ আদালত।এ সময় জেলেদের থেকে ২টি ট্রলার,২ হাজার মিটার কারেন্ট জাল এবং ৫০ কেজি ইলিশ জব্দ করা হয়।পরে ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্দেশে ইলিশ ধরার কাজে ব্যবহৃত ২টি ট্রলার ডুবিয়ে ও ২ হাজার মিটার কারেন্ট জাল পুড়িয়ে বিনষ্ট করা হয়। জব্দকৃত ২শ’কেজি ইলিশ স্থানীয় প্রায় ১০টি মাদ্রাসা ও এতিমখানায় বিতরণ করা হয়েছে।পরে দিঘীরপাড় পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রে অস্থায়ী আদালত বসিয়ে ১জনকে ৫ হাজার টাকা অর্থদণ্ড ও প্রত্যেক জেলেকে ১৫দিন করে কারাদণ্ড প্রদান করে জেলহাজতে প্রেরণ করেন ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক আশরাফুল কবির।এর আগে মুন্সিগঞ্জ জেলা ম্যাজিস্ট্রেট কার্যালয়ের এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট আশরাফুল কবীর-এর নেতৃত্বে বৃহস্পতিবার ভোর ৪টা থেকে সকাল ১০টা পর্যন্ত টংগিবাড়ী উপজেলার পদ্মা নদীর বিভিন্ন পয়েন্টে এ অভিযান চালানো হয়।এ সময় উপস্থিত ছিলেন, জেলা মৎস্য কর্মকর্তা ড.মো.আব্দুল আলীম,উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা জাকির হোসেন মৃধা, দিঘীরপাড় পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ আজিজুর রহমান, মাওয়া কোস্ট গার্ডের সিনিয়র অফিসার কমান্ডার মতিউর রহমান প্রমূখ।এ বিষয়ে মুন্সিগঞ্জ জেলা ম্যাজিস্ট্রেট কার্যালয়ের এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট আশরাফুল কবীর জানান,
টংগিবাড়ি উপজেলার পদ্মানদীর বিভিন্ন পয়েন্টে অভিযান চালিয়ে ৯ জেলে ও ১ জন ক্রেতাকে আটক করা হয়। ৯ জেলেকে মা ইলিশ ধরার অপরাধে প্রত্যেককে ১৫ দিন করে কারাদণ্ড ও ১জন ক্রেতাকে মা ইলিশ মজুদ করার দায়ে ৫ হাজার টাকা অর্থদণ্ড প্রদান করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর
Design and Developed by DONET IT
SheraWeb.Com_2580