রবিবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২১, ০৪:৩৩ অপরাহ্ন

ট্রাম্পের অভিশংসন নিয়ে রিপাবলিকানদের মধ্যে বিভক্তি বাড়ছে

অনলাইন ডেক্স :
  • প্রকাশিত সময় : শনিবার, ১৬ জানুয়ারী, ২০২১
  • ২৫ পাঠক পড়েছে

মার্কিন কংগ্রেসে রিপাবলিকান পার্টির মধ্যে বিভক্তি দেখা দিয়েছে। যুক্তরাষ্ট্রের স্থানীয় সময় বুধবার নিম্নকক্ষ প্রতিনিধি পরিষদে ১০ রিপাবলিকান আইন প্রণেতা বর্তমান প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পকে অভিশংসন করার প্রস্তাবের পক্ষে ভোট দেয়ার পর এ বিভক্তি প্রকাশ পায়। এখন সেই রিপাবলিকান সদস্যদের দল থেকে পদত্যাগ করার আহ্বান জানানো হয়েছে।

পাশাপাশি তাদের হুমকি দেয়া হচ্ছে। যা নিয়ে তারা তাদের নিরাপত্তা নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন। খবর সিএনএন, ইউএসএ টুডে, লস এ্যাঞ্জেলেস টাইমস, ওয়াল স্ট্রিট জার্নাল ও ওয়াশিংটন পোস্টের।

কংগ্রেসে রিপাবলিকান দলের তৃতীয় স্থানে থাকা নারী নেত্রী লিজ চেনি ওই দশজন আইন প্রণেতার মধ্যে একজন। তাকে এখন দলীয় নেতৃত্ব থেকে পদত্যাগের কথা বলা হয়েছে। কেননা তিনি ট্রাম্পকে অভিশংসন করার জন্য প্রস্তাবের পক্ষে ভোট দিয়েছেন। চেনিকে এখন সংঘাতের মুখোমুখি হতে হুমকি দেয়া হচ্ছে। যেজন্য তিনি এখন তার নিরাপত্তা নিয়ে উদ্বিগ্ন। অন্য যেসব আইন প্রণেতারা ট্রাম্পের বিরুদ্ধে ভোট দিয়েছেন তাদেরও একই ধরনের হুমকি দেয়া হচ্ছে বলে তারা জানিয়েছে। বিষয়টি এমন এক সময়ে জানা গেল যখন ট্রাম্পকে অভিশংসন করার ব্যাপারে সিনেটে প্রস্তুতি চলছে। লিজের বাবা সাবেক রিপাবলিকান প্রেসিডেন্ট জর্জ ডব্লিউ বুশের ভাইস প্রেসিডেন্ট ডিক চেনি। লিজকে এখন দ্রুতই দল থেকে পদত্যাগ করতে বলা হয়েছে। যেহেতু তিনি ট্রাম্পের বিরুদ্ধে ভোট দিয়েছেন তাই তাকে এসব কথা বলা হচ্ছে।

বাইডেনের প্রণোদনা প্রস্তাব ॥ যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট বাইডেন করোনা ক্ষতিগ্রস্ত মার্কিন অর্থনীতির জন্য এক দশমিক ৯ ট্রিলিয়ন বা এক কোটি ৯০ লাখ কোটি মার্কিন ডলারের একটি প্রণোদনা পরিকল্পনা হাজির করেছেন। আগামী সপ্তাহে প্রেসিডেন্টের দায়িত্ব নেয়ার পর কংগ্রেসে এ পরিকল্পনা পাস করানোই তার প্রশাসনের কাছে অগ্রাধিকার পাবে। বাইডেনের প্রস্তাবে মার্কিন পরিবারগুলোর জন্য এক ট্রিলিয়ন বা এক লাখ কোটি মার্কিন ডলার রাখা হয়েছে। কংগ্রেসে প্রস্তাবটি পাস হলেই মার্কিন নাগরিকরা এককালীন এক হাজার ৪০০ মার্কিন ডলার করে পাবেন।

টুইটার যাচ্ছে বাইডেনের হাতে ॥ যুক্তরাষ্ট্রের নবনির্বাচিত প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনকে বরণ করে নিতে প্রস্তুত হচ্ছে হোয়াইট হাউস। এরইমধ্যে যুক্তরাষ্ট্রের স্থানীয় সময় বৃহস্পতিবার টুইটার কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, হোয়াইট হাউসের প্রাতিষ্ঠানিক টুইটার এ্যাকাউন্টগুলো বাইডেন প্রশাসনের কাছে হস্তান্তর করবে তারা। ২০ জানুয়ারি প্রেসিডেন্ট পদ থেকে বিদায় নেবেন বর্তমান প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। সেদিন নতুন প্রেসিডেন্ট হিসেবে শপথ নেবেন বাইডেন। সেদিনই প্রেসিডেন্ট বাইডেন প্রশাসনের কাছে হোয়াইট হাউসের প্রাতিষ্ঠানিক টুইটার এ্যাকাউন্টগুলো হস্তান্তর করবে টুইটার।

চীনের ওপর নিষেধাজ্ঞা ট্রাম্পের ॥ প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের ক্ষমতা ছাড়ার বাকি আর পাঁচদিন। এরইমধ্যে চীনের সরকারী কর্মকর্তা ও বড় কিছু প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞার খড়গ চাপালেন। বিরোধপূর্ণ দক্ষিণ চীন সাগর নিয়ে অপরাধমূলক কর্মকাণ্ড চালানোর অভিযোগে এ পদক্ষেপ নিলেন তিনি। পাশাপাশি ৯ প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে বিনিয়োগ সংক্রান্ত নিষেধাজ্ঞা জারি করেছেন। বিশ্লেষকেরা বলছেন, বাণিজ্যযুদ্ধসহ নানা বিষয়ে চীনের সঙ্গে বহুদিন ধরেই উত্তেজনায় জড়িয়ে আছে যুক্তরাষ্ট্র। এখন ক্ষমতার একেবারে শেষ পর্যায়ে এসেও ট্রাম্পের এমন বৈরিতাপূর্ণ আচরণে দেশ দুটির মধ্যে এ উত্তেজনা আরও বাড়বে। তিনি এমন একসময় এ পদক্ষেপ নিলেন, যখন গত ৩ নবেম্বরের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে তার প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী বাইডেন আগামী বুধবার হোয়াইট হাউসে বসতে চলেছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর
Design and Developed by DONET IT
SheraWeb.Com_2580