বৃহস্পতিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২১, ০২:০৩ পূর্বাহ্ন

ঢাকায় গৃহকর্মীকে ধর্ষণ, ছাত্রলীগ নেতা রিমান্ডে

অনলাইন ডেক্স :
  • প্রকাশিত সময় : শুক্রবার, ২ অক্টোবর, ২০২০
  • ১১ পাঠক পড়েছে

বান্ধবীর বাসার গৃহকর্মীকে ধর্ষণের অভিযোগে গ্রেফতার ঢাকা মহানগর উত্তর ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি সবুজ আল সাহবারকে পাঁচ দিনের রিমান্ডে নিয়েছে পুলিশ। এ সময় তার সহায়তাকারী বান্ধবী বিবি ফাতেমা ঝুমুরকে (৩৫) তিনদিনের রিমান্ডে নেয়া হয়েছে। মিরপুর থানায় গৃহকর্মী ওই তরুণীর দায়ের করা মামলায় তাদের বুধবার রাতে গ্রেফতার করা হয়। এদিকে এই অভিযোগের পর অভিযুক্ত সবুজকে সংগঠন থেকে বহিষ্কারের কথা ভাবছে ছাত্রলীগ। ডিএমপি মিরপুর থানার পুলিশ জানায়, ফাতেমা চিকিৎসার কথা বলে ২৮ সেপ্টেম্বর রাতে তার গৃহকর্মীকে নিয়ে ছাত্রলীগ নেতা সবুজের পশ্চিম মনিপুরের ভাড়া বাসায় নিয়ে যায়। রাতে কৌশলে ফাতেমা তার গৃহকর্মীকে সবুজের কক্ষে পাঠায়। তার সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক করতে বলে। তখন গৃহকর্মী রাজি না হলে বাইরে থেকে ফাতেমা দরজা বন্ধ করে দেয়। পরে সবুজ গৃহকর্মীকে ভয়ভীতি দেখিয়ে ধর্ষণ করে। রাতভর তাকে আটকে রাখে। ফাতেমা সবুজের কাছ থেকে নিয়ে ভিকটিমকে ১০ হাজার টাকা দেবে বলে রাতে ওই বাসায় ঘুমিয়ে পড়ে। ৩০ সেপ্টেম্বর তারা বাসায় চলে যায়। পরে গৃহকর্মী বিষয়টি তার স্বজনদের জানায়। এরপরই বুধবার রাত দেড়টার দিকে ওই গৃহকর্মী সবুজ ও তার ফেসবুক বান্ধবী ফাতেমা ঝুমুরের বিরুদ্ধে ধর্ষণের মামলা করেন। এদিকে বৃহস্পতিবার সকালে ভুক্তভোগী গৃহকর্মীকে ধর্ষণের আলামত পরীক্ষার জন্য ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের ওসিসিতে ভর্তি করা হয়েছে।

মিরপুর মডেল থানার ওসি মোস্তাজিরুর রহমান জানান, বুধবার মধ্যরাতে ধর্ষণের অভিযোগ এনে ভুক্তভোগী গৃহকর্মী নিজেই বাদী হয়ে একটি মামলা করেন। পরে রাতেই সবুজ আল সাহবা ও ফাতেমা ঝুমুর নামে দু’জনকে গ্রেফতার করা হয়। ঝুমুর ও সবুজ দু’জন ফেসবুক বন্ধু। ওসি জানান, তাদের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ রয়েছে। এজন্য গ্রেফতার করা হয়েছে। এখানে রাজনৈতিক পরিচয় মুখ্য নয়। তবে বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে। ঢাকা মহানগর উত্তর শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি মোঃ ইব্রাহিম জানান, আমাদের কাছে অভিযোগ এসেছে, আমরা তার বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা গ্রহণ করছি। এ ধরনের অপরাধের সঙ্গে আমাদের কেউ জড়িত থাকলে সংগঠনে থাকতে পারবে না।

অন্যদিকে বৃহস্পতিবার দুপুরে গ্রেফতার ছাত্রলীগ নেতা সবুজ ও তার সহায়তাকারী ঝুমুরকে ঢাকা মহানগর হাকিম আদালতে হাজির করে পুলিশ। মামলার সুষ্ঠু তদন্তের জন্য তাদের সাতদিনের রিমান্ডে নিতে আবেদন করেন মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা। আসামিদের আইনজীবীরা রিমান্ড বাতিল চেয়ে জামিনের আবেদন করেন। উভয়পক্ষের শুনানি শেষে ঢাকা মহানগর হাকিম ধীমান চন্দ্র মণ্ডল জামিনের আবেদন নামঞ্জুর করে সবুজের পাঁচ ও ঝুমুরের তিন দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

উল্লেখ্য, গত ২৫ সেপ্টেম্বর রাতে স্বামীর সঙ্গে সিলেটের এমসি কলেজে বেড়াতে গিয়ে গণধর্ষণের শিকার হন এক নববধূ। স্বামীকে প্রাইভেটকারে আটকে রেখে এমসি কলেজের ছাত্রাবাসে নিয়ে গণধর্ষণ করা হয় ওই নববধূকে। এ ঘটনায় অভিযুক্ত সবাই ওই কলেজের এবং স্থানীয় ছাত্রলীগের নেতাকর্মী। এ ঘটনার রেশ কাটতে না কাটতেই আরও এক ছাত্রলীগ নেতার বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ উঠল।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর
Design and Developed by DONET IT
SheraWeb.Com_2580