বৃহস্পতিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২১, ১০:১৯ পূর্বাহ্ন

তানোরে দালালের হাতে ব্যবসায়ী প্রহৃত

অনলাইন ডেক্স :
  • প্রকাশিত সময় : রবিবার, ৪ অক্টোবর, ২০২০
  • ৪ পাঠক পড়েছে

রাজশাহীর তানোরে থানার দালালের হাতে এক মুড়ি ব্যবসায়ী প্রহৃত হয়েছে। চলতি বছরের ৪ অক্টোবর রোববার তানোর পৌর এলাকার তালন্দ বাজারে প্রকাশ্যে দিবালোকে এই ঘটনা ঘটেছে।
স্থানীয়রা জানান, তানোরের হরিদেবপুর গ্রামের বাসিন্দা বিএনপি নেতা হাজী উসমান আলীর পুত্র সোহাগ আলী দীর্ঘদিন ধরে দরোগা ফারুকের দালাল হিসেবে কাজ করে আসছে। তারা আরো বলেন, প্রায় প্রতিদিন তালন্দ বাজারে সোহাগের হার্ডওয়ারে দোকানে পিকনিক করা হয় এসব পিকনিকে থানার দারোগা ফারুক উপস্থিত থাকে। আবার অধিকাংশ সময় দারোগা ফারুক দিনের বেলায় সোহাগের দোকানে বসে থাকে আর সোহাগ দারোগার মোটরসাইকেল নিয়ে এলাকা দাপিয়ে বেড়ায়। এলাকার কার নামে জিডি আছে, কার নামে অভিযোগ আছে, কে মাদক বিক্রি করে ইত্যাদি সন্ধান করে সোহাগের হার্ডওয়ার দোকানে বসে সামারি বাণিজ্য করা হয় জনশ্রুতি রয়েছে।
প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, এদিন দুপুরে মুড়ি ব্যবসায়ী তালন্দ বৈরাগী পাড়ার হারান চন্দ্রের পুত্র জয়দেব দাস অটোচার্জার গাড়ী করে মুড়ি নিয়ে আসছিল আর বিপরিত দিক থেকে দারোগার মোটরসাইকেল নিয়ে আসছিলেন সোহাগ এ সময় মুড়ির বস্তার সঙ্গে তার মোটরসাইকেলের মৃদু ধাক্কা লাগে তবে মোটরসাইকেলের কোনো ক্ষতি হয়নি।কিন্ত্ত
এই অপরাধে দারোগার নির্দেশে সোহাগ মুড়ি ব্যবসায়ী জয়দেবকে প্রকাশ্যে দিবালোকে রাস্তায় ফেলে বেধড়ক পিটিয়ে মাথা ফাটিয়ে দেয় উৎসক জনতা তাকে উদ্ধার করেন। এ সময় সেখানে চরম উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে বিক্ষুব্ধ জনতা পুলিশকে ঘিরে ধরে বিচার দাবি করে। তবে পরিস্থিতি প্রতিকুল বুঝতে পেরে দারোগা ফারুক গাড়ি নিয়ে কৌশলে দ্রুত এলাকা ত্যাগ করে, আর সোহাগ প্রকৃতির ডাকে সাড়া দেবার কথা বলে ভোঁ-দৌড়ে পালিয়ে যায়। অন্যদিকে সাধারণ মানুষের প্রশ্ন দারোগার মোটর সাইকেল সাধারণ মানুষের হাতে কেনো-? এছাড়াও একজন পুলিশ কর্মকর্তা থানার বাইরে গেলে যাবার কারন, স্থান, সময় ইত্যাদি উল্লেখ করে থানায় জিডি করার কথা। এ ঘটনায় এলাকাবাসীর মধ্যে চরম অসন্তোষ বিরাজ করছে। এবিষয়ে জানতে চাইলে সোহাগ আলী বলেন, মোটরসাইকেল তার নিজেরই ছিল। তিনি বলেন, জয়দেবের মাথা কি ভাবে ফেটেছে সেটাা তিনি বলতে পারবেন না। তবে সেখান থেকে তিনি ভৌঁ-দৌড়ে পালালেন কেনো এই প্রশ্নের তিনি কোনো সদোত্তোর না দিয়ে কৌশলে এড়িয়ে গেছেন। এবিষয়ে জানতে চাইলে দারোগা ফারুক অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, তিনি কাউকে মোটর সাইকেল দেননি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর
Design and Developed by DONET IT
SheraWeb.Com_2580