রবিবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২১, ১২:৫৭ পূর্বাহ্ন

ভ্যাকসিন নেয়ার পর রুনুসহ সবাই সুস্থ

অনলাইন ডেক্স :
  • প্রকাশিত সময় : বৃহস্পতিবার, ২৮ জানুয়ারী, ২০২১
  • ১৮ পাঠক পড়েছে

রুনু ভেরোনিকা কস্তা, রাজধানীর কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালের এক সেবিকা। সংবাদপত্র টেলিভিশন সবখানে গত কয়েকদিন আলোচনায় ছিলেন একজন সেবিকা প্রথম করোনা ভ্যাকসিন গ্রহণ করবেন। তবে সেই নামটি বুধবারই প্রথম সরকারের পক্ষ থেকে প্রকাশ করা হয়। তিনি এখন সবার কাছেই পরিচিত এক নাম। দেশের প্রথম করোনা ভ্যাকসিন গ্রহণের পর এক গাল হেসে তিনি বলেছেন ‘জয় বাংলা’। ৭১ এর এই স্লোগান আমাদের স্বাধীনতা এনে দিয়েছিল। এবার ভেরোনিকার মুখের জয় বাংলায় আমরা মহামারীকেই হারিয়ে দেব। বুধবার যাদের ভ্যাকসিন দেয়া হয়েছে তাদের মধ্যে কোন পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া দেখা যায়নি।

শুরুতে যে পাঁচজনকে ভ্যাকসিন দেয়া হয়েছে এরমধ্যে স্বাস্থ্য অধিদফতরের অতিরিক্ত পরিচালক ড. নাসিমা সুলতানাও রয়েছেন। বিকেলে ভ্যাকসিন গ্রহণের পর সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় তিনি প্রতিক্রিয়ায় জনকণ্ঠকে জানান, ভ্যাকসিন গ্রহণের পর তিনি শারীরিকভাবে সম্পূর্ণ সুস্থ রয়েছেন। আর মানসিকভাবে উজ্জীবিত বোধ করছেন। যারা প্রথমদিন ভ্যাকসিন নিয়েছেন তারা সকলেই সুস্থ রয়েছেন বলে জানান। তিনি বলেন, আমি এখন পর্যন্ত যতদূর খবর পেয়েছি তারা সকলে সুস্থ রয়েছেন। তিনি জানান, ভ্যাকসিনের নিবন্ধন আজ থেকে শুরু হয়ে যাওয়ার কথা। তবে তাদের সকলকে বুধবার বিকেলে ম্যানুয়ালি নিবন্ধন করা হয়েছে।

বুধবার বিকেলে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশে ভ্যাকসিন প্রয়োগ কার্যক্রম উদ্বোধন করেন। উদ্বোধনকে ঘিরে সারাদেশের মানুষের মধ্যে বিশেষ আগ্রহ ছিল। দক্ষিণ এশিয়ার দ্বিতীয় দেশ হিসেবে বাংলাদেশে করোনা ভ্যাকসিন প্রয়োগ শুরু হলো। এখন সরকারের হাতে প্রায় ৭০ লাখ ভ্যাকসিন রয়েছে। আগামী মাসের যে কোন সময় আরও ৫০ লাখ ভ্যাকসিন চলে আসবে। দক্ষিণ এশিয়াতো বটেই এশিয়ার অনেক দেশই শুরুতেই এত বিপুল ভ্যাকসিন নিয়ে তাদের কার্যক্রম শুরু করতে পারেনি। সরকার বলছে বিধিনিষেধ নেই এমন সব মানুষেকে ভ্যাকসিনের আওতায় আনা হবে। আপাতত দেশের মানুষকে বিনামূল্যে ভ্যাকসিন প্রয়োগের গাইড লাইন তৈরি করেছে সরকার।

দেশে ভ্যাকসিন নিয়ে এক ধরনের অপপ্রচার রয়েছে। যাতে শুরুতে অনেকে ভ্যাকসিন গ্রহণে সাধারণের মধ্যে ভীতি দূর করা যায় এজন্য চিকিৎসক এবং সেনাবাহিনীর পদস্থ কর্মর্তাদেরও ভ্যাকসিন দেয়া হয়েছে। বুধবার প্রথম টিকা পাওয়া বাকি চারজন হলেন- এ হাসপাতালের চিকিৎসক ডাঃ আহমেদ লুৎফুল মোবেন, স্বাস্থ্য অধিদফতরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক অধ্যাপক ডাঃ নাসিমা সুলতানা, মতিঝিল বিভাগের ট্রাফিক পুলিশ সদস্য মোঃ দিদারুল ইসলাম এবং বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর ব্রিগেডিয়ার জেনারেল এম ইমরান হামিদ। ভ্যাকসিন গ্রহণের পর সবাই জয়বাংলা স্লোগান দেন।

ভ্যাকসিন নেয়ার আগে নার্স রুনু বেরুনিকা কস্তাকে প্রধানমন্ত্রী জিজ্ঞেস করেন, তোমার ভয় লাগছে না তো?’ উত্তরে রুনু ‘না’ বললে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘খুব সাহসী তুমি। তোমার জন্য শুভ কামনা। তুমি আরও বেশি করে রোগীদের সেবা কর।’

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক। সঞ্চালনা করেন প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়ের সচিব তোফাজ্জল হোসেন।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেছেন, করোনা নিয়ে বিদ্রুপকারী বিএনপি নেতাদেরও ভ্যাকসিন দেয়া হবে। তিনি বলেন, যারা ভ্যাকসিন নিয়ে বিদ্রুপ করেছে, তাদেরও ভ্যাকসিন দেয়া হবে।

আমরা চাই, তারা বেঁচে থাকুক, বেঁচে থেকে সরকারের সমালোচনা ও বিদ্রুপ করুক। বিকেল ৪টা ৩৫ মিনিটে রাজধানীর কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে কোভিড-১৯ টিকা দেয়া কার্যক্রম পরিদর্শন শেষে এ কথা বলেন তিনি।

করোনা ভ্যাকসিন নিজে নেবেন কি না এমন প্রশ্নের জবাবে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, আমরা আগে ভ্যাকসিন নিয়ে নিলে মানুষ বলবে, আমরা তাদের দিলাম না। আমরা আগে তাদের দেই। তারপর সবার দেয়া শেষ হলে আমি নেবো।

যে ৫ জন প্রথম করোনা টিকা নিয়েছেন তারা সুস্থ আছেন জানিয়ে জাহিদ মালেক বলেন, প্রথম ৫ জন ভ্যাকসিন নিয়েছেন। তাদের সঙ্গে কথা বলেছি। তারা ভাল আছেন। কোন ধরনের সমস্যা হয়নি।

মন্ত্রী বলেন, পৃথিবীতে যতগুলো ভ্যাকসিন আবিষ্কার হয়েছে, ভারতের এই ভ্যাকসিন সবচেয়ে ভাল, এটা প্রমাণিত হয়েছে। এটার পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া নেই।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, আজ খুবই আনন্দিত। বহুল প্রতীক্ষিত ভ্যাকসিন কার্যক্রম শুরু হয়েছে। প্রধানমন্ত্রীও খুবই আনন্দিত। তিনি বলেন, ভ্যাকসিন অভাব হবে না। ৭ ফেব্রুয়ারি সারাদেশে ভ্যাকসিন দেয়া হবে। ভ্যাকসিন দেয়ার জন্য সব প্রস্তুতি সম্পন্ন। যারা ভ্যাকসিন নেবেন, তারা নিবন্ধন করবেন। কোন সমস্যা দেখা হলে চিকিৎসা দেয়া হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর
Design and Developed by DONET IT
SheraWeb.Com_2580