সোমবার, ১৮ জানুয়ারী ২০২১, ০৪:৪২ অপরাহ্ন

মণিরামপুর উপজেলায় বাণিজ্যিক ভাবে চুই ঝালের চাষ শুরু

অনলাইন ডেক্স :
  • প্রকাশিত সময় : বৃহস্পতিবার, ২৬ নভেম্বর, ২০২০
  • ১ পাঠক পড়েছে

মণিরামপুর উপজেলায় বাণিজ্যিক ভাবে চুই ঝালের চাষ শুরু করেছেন বিভিন্ন এলাকার চাষীরা। চুই ঝালের চাষ করে লাভবান হবেন এমন স্বপ্ন দেখছেন তারা। উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় যত্রতত্র ভাবে চুই ঝাল চাষ করে লাভের মুখ দেখায় এবার বাণিজ্যিকভাবে শুরু হয়েছে চুই-ঝালের চাষ। উপজেলার হায়াতপুর গ্রামে রেজাউল করিম ও নিজাম উদ্দীন দুই সহোদর মিলে প্রায় ৩ বিঘা জমিতে চুই-ঝালের চাষ করেছেন। ওই জমিতে বছর দু’য়েক আগে লাগানো আমড়া গাছের গোড়ায় রোপন করা হয়েছে চুই গাছের চারা। চার মাস আগে রোপনকৃত চুই গাছের চারা আমড়া গাছে ত্বর ত্বর করে বেড়ে উঠছে। আশা করা হচ্ছে বছর পার হলেই চুই গাছের ডাল কাটা শুরু হবে। এতে খরচ বাদে ব্যাপক লাভের আশা করছেন তারা। চুই-ঝালের চাষ অপার সম্ভবনাময় হিসেবে দেখছে স্থানীয় কৃষি বিভাগ। খোঁজ খবর নিয়ে জানাযায়, প্রতিটি আমড়া গাছ বেয়ে উঠছে চুই গাছের চারা। জমির কিছু কিছু জায়গায় অন্যান্য গাছ লাগিয়ে গোড়ায় উঠিয়ে দেয়া হয়েছে চুই গাছের চারা। এ সময় চুই চাষী রেজাউল করিমের সাথে কথা হলে তিনি জানান, করোনার প্রাদূর্ভাবে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ হওয়ায় নতুন কিছু করার সিদ্ধান্ত নেয় সে। স্থানীয় বাজারে এর ব্যাপক চাহিদা থাকায় চুই-ঝাল চাষে ঝুঁকে পড়েন তিনি। এতে অন্য ফসলের ন্যায় অধিক হারে সার-কীটনাশকের ব্যবহারসহ পরিচর্যার দরকার হয়না। অপরদিকে বাজারদরও বেশ। চারা সংগ্রহ করে জমিতে আগেই লাগানো আমড়া গাছের গোড়ায় রোপন করেন চুই গাছের চারা। আশ্বিন মাসে ৮ ফুট দূরত্বে রোপন করা হয় চুই-ঝালের চারা। এতে তার ৫০ হাজার টাকা খরচ হয়েছে। খরচের তুলনায় কয়েকগুন লাভ হবে তারা আশা করছেন। তাদের সব ধরনের পরামর্শ দেয়া হচ্ছে জানিয়ে উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা হীরক কুমার সরকার বলেন, উপজেলায় বানিজ্যক ভাবে চুই ঝালের চাষ এটিই প্রথম। কৃষকরা চুই-ঝাল চাষ করে অর্থনৈতিভাবে লাভবান হবে বলে তিনি আশা করছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর
Design and Developed by DONET IT
SheraWeb.Com_2580