সোমবার, ১৮ জানুয়ারী ২০২১, ০৪:৩৮ অপরাহ্ন

মার্কিন বাহিনীর কমান্ডার ইন চীফ হলেন বাইডেন

অনলাইন ডেক্স :
  • প্রকাশিত সময় : বৃহস্পতিবার, ১৪ জানুয়ারী, ২০২১
  • ১৮ পাঠক পড়েছে

মার্কিন বাহিনীর ৪৬তম কমান্ডার ইন চীফ হিসেবে যুক্তরাষ্ট্রের নবনির্বাচিত প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের নাম ঘোষণা করা হয়েছে। স্থানীয় সময় মঙ্গলবার যুক্তরাষ্ট্রের জয়েন্ট চীফ অব স্টাফের এক বার্তায় তার নাম ঘোষণা করা হয়। এতে বলা হয়েছে, আগামী ২০ জানুয়ারি থেকে সংবিধান অনুযায়ী শপথ গ্রহণের মাধ্যমে তার ওপর এ দায়িত্ব ন্যস্ত হবে। খবর বিবিসি, সিএনএন, আলজাজিরা, রয়টার্স, লস এ্যাঞ্জেলেস টাইমস, ফক্স নিউজ ও ওয়াশিংটন পোস্টের।

বার্তায় আরও বলা হয়, মার্কিন পার্লামেন্ট ভবন ইউএস ক্যাপিটলে উগ্র ট্রাম্প সমর্থকদের তাণ্ডবকে দেশটির পার্লামেন্ট ও সংবিধানের ওপর প্রত্যক্ষ আঘাত হিসেবে বিবেচনা করা হচ্ছে। জয়েন্ট চীফস চেয়ারম্যান জেনারেল মার্ক মিলি এবং অন্যান্য জয়েন্ট চীফ ওই বার্তায় স্বাক্ষর করেন। তারা বলেন, ক্যাপিটল ভবনে সেদিন যা ঘটেছে তা আইনের শাসনের সঙ্গে সঙ্গতিপূর্ণ নয়। গত বুধবার ইউএস ক্যাপিটলে ট্রাম্প সমর্থকদের তাণ্ডবের এক সপ্তাহের মাথায় মঙ্গলবার দেশটির সশস্ত্রবাহিনীর পক্ষ থেকে এমন বার্তা দেয়া হয়।

অভিশংসনে আরও সহিংসতা ॥ ডোনাল্ড ট্রাম্পকে প্রেসিডেন্টের পদ থেকে অপসারণে ডেমোক্র্যাটদের আহ্বান ভাইস প্রেসিডেন্ট মাইক পেন্স প্রত্যাখ্যানের পর আরও উদ্ধত হয়ে উঠেছেন তিনি। গত ৬ জানুয়ারি ক্যাপিটল ভবনে ট্রাম্পের উগ্র সমর্থকদের দাঙ্গার পর এই রিপাবলিকান প্রেসিডেন্টকে ক্ষমতাচ্যুত করতে আহ্বান জানিয়েছিলেন ডেমোক্র্যাটরা। ওই হামলার পর প্রথমবারের মতো সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে ট্রাম্প বলেন, কংগ্রেস ভবনে হামলার দিন তার বক্তব্য ছিল ‘যথোপযুক্ত’। এ সময়ে কোন ধরনের সহিংসতা না করতে তিনি আহ্বান জানিয়েছেন। তাকে ‘হেয়প্রতিপন্ন করতেই’ দ্বিতীয়বারের মতো অভিশংসন চেষ্টা বলে উল্লেখ করেছেন তিনি। এরপর ভিত্তিহীনভাবে তিনি বলেন, তার উত্তরসূরি নির্বাচিত প্রেসিডেন্ট বাইডেন দায়িত্ব থেকে নিজেই সরে দাঁড়াতে বাধ্য হবেন। গত বুধবার যা ঘটেছে, তার দায়িত্ব নিতে অস্বীকৃতি জানিয়েছেন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প। ভাইস প্রেসিডেন্ট মাইক পেন্সসহ রাজনৈতিক নেতাদের খুঁজে বের করে হত্যার হুমকির বিষয়ে তিনি কোন নিন্দা জানাননি। এরপর কোন তথ্যপ্রমাণ ছাড়াই ট্রাম্প দাবি করেন, যারা তার বক্তব্য বিশ্লেষণ করেছেন, তারা এতে কোন ত্রুটি খুঁজে পাননি। তার আমার বক্তব্য, আমার কথা বিশ্লেষণ করেছেন। সবাই এটিকে যথোপযুক্ত বলে বিবেচনা করেছেন। ২০ জানুয়ারিতে বাইডেনের শপথ অনুষ্ঠান ঘিরে নিরাপত্তা হুমকি বাড়তে থাকা নিয়ে কর্তৃপক্ষের সতর্কবার্তার মুখে ট্রাম্প গত সোমবারেই ওয়াশিংটন ডিসিতে আগামী ২৪ জানুয়ারি পর্যন্ত জরুরী অবস্থা জারি রাখার অনুমোদন দেন। জরুরী অবস্থায় সাড়া দিতে ওই সময় পর্যন্ত ফেডারেল সরকারের সহায়তার আশ্বাসও দেয়া হয়। অর্থাৎ ট্রাম্পের ওই অনুমোদনের ফলে ডিপার্টমেন্ট অব হোমল্যান্ড সিকিউরিটি এবং ফেডারেল ইমার্জেন্সি ম্যানেজমেন্ট এজেন্সি স্থানীয় কর্তৃপক্ষের সঙ্গে সমন্বয় করে কাজ করতে পারবে।

ক্যাপিটলের ঘটনায় সেনাবাহিনীর নিন্দা ॥ বিদায়ী মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের উস্কানিমূলক বক্তব্য এবং তার ঠিক পরেই ক্যাপিটল ভবনে তার সমর্থকদের হামলার ঘটনার তীব্র নিন্দা জানিয়েছে মার্কিন সেনাবাহিনী। সেনাবাহিনীর প্রতিটি শাখার অফিসাররা রীতিমতো চিঠি লিখে ওই দিনের ঘটনার নিন্দা জানিয়েছেন। বিবৃতিতে তারা বলেছেন, ওই ঘটনা শুধু অন্যায় নয়, আইনবিরুদ্ধ। যারা ওই ঘটনার সঙ্গে যুক্ত, তাদের শাস্তি হওয়া উচিত। শুধু তাই নয়, চিঠিতে তারা লিখেছেন, ট্রাম্প যাই দাবি করুন, গণতান্ত্রিক পদ্ধতিতে পরবর্তী মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হয়েছেন জো বাইডেন। তারা তাকে স্বাগত জানাচ্ছেন। ট্রাম্পকে হুঁশিয়ারি জাতিসংঘের ॥ এবার জাতিসংঘের রোষের মুখে পড়লেন যুক্তরাষ্ট্রের বিদায়ী প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প। ট্রাম্পসহ সব রাজনৈতিক নেতাদের সতর্ক করে তারা জানিয়েছে, প্রেসিডেন্ট বাইডেনের শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানের দিন যেন কোন রকম হিংসার ঘটনা না ঘটে। রাষ্ট্রপুঞ্জের মুখপাত্র স্টেফানি ডুয়ারিচ বলেন, কোন রাজনৈতিক নেতা যেন হিংসাকে প্রশ্রয় না দেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর
Design and Developed by DONET IT
SheraWeb.Com_2580