সোমবার, ২৫ জানুয়ারী ২০২১, ০৫:৫৯ পূর্বাহ্ন

হাইকোর্টে পাপুলের স্ত্রী, মেয়ে ও শ্যালিকার জামিন আবদেন

অনলাইন ডেক্স :
  • প্রকাশিত সময় : শনিবার, ২৮ নভেম্বর, ২০২০
  • ৬ পাঠক পড়েছে

মানবপাচার, মুদ্রা পাচার, ঘুষ লেনদেন ও অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগে দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) করা মামলায় হাইকোর্টে আগাম জামিন চেয়ে আবেদন করেছেন কুয়েতে গ্রেপ্তার লক্ষ্মীপুর-২ আসনের সংসদ সদস্য (এমপি) কাজী শহিদ ইসলাম পাপুলের স্ত্রী সংসদ সদস্য সেলিনা ইসলাম, শ্যালিকা জেসমিন প্রধান ও মেয়ে ওয়াফা ইসলাম। আগামীকাল রোববার এ বিষয়ে হাইকোর্টে শুনানি হতে পারে।

দুদকের আইনজীবী মো. খুরশীদ আলম খান আজ শনিবার এ তথ্য জানিয়েছেন।

আইনজীবী খুরশীদ আলম জানান, গত বৃহস্পতিবার দুটি জামিনের আবেদন পাওয়া গেছে। একটিতে সেলিনা ইসলাম ও তার মেয়ের আবেদন। অপরটিতে সেলিনা ইসলামের বোন জেসমিন প্রধানের আবেদন।

গত ১১ নভেম্বর পাপুল, তাঁর স্ত্রী সেলিনা, শ্যালিকা জেসমিন প্রধান এবং মেয়ে ওয়াফা ইসলামের বিরুদ্ধে দুদকের অনুসন্ধান কর্মকর্তা উপপরিচালক সালাহউদ্দিন বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেন।

লক্ষ্মীপুর-২ আসনের সংসদ সদস্য শহিদ ইসলাম পাপুল ও তাঁর স্ত্রী সংরক্ষিত আসনের এমপি সেলিনা ইসলামসহ চারজনের বিরুদ্ধে মামলা করেছিল দুদক।

দুদকের উপপরিচালক মো. সালাহউদ্দিন বাদী হয়ে এ মামলা দায়ের করেন। মামলার আসামিরা হলেন পাপুল ও তাঁর স্ত্রী, মেয়ে ওয়াফা ইসলাম ও সেলিনার বোন জেসমিন আক্তার। দুই কোটি ৩১ লাখ টাকার অবৈধ সম্পদ এবং ১৪৮ কোটি টাকার অর্থ পাচারের অভিযোগ এনে এই মামলা করে দুদক।

অর্থ ও মানবপাচারের অভিযোগে কুয়েতের কারাগারে রয়েছেন সংসদ সদস্য শহিদ ইসলাম পাপুল। গত ৬ জুন রাতে পাপুলকে তাঁর কুয়েতের বাসা থেকে গ্রেপ্তার করে সে দেশের আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। এরপর থেকে তিনি ওই দেশের কারাগারে আছেন। পাপুলের বিরুদ্ধে মানব ও অর্থপাচার, ঘুষ লেনদেন ও শ্রমিক শোষণের অভিযোগ আনা হয়েছে। পাপুলের সঙ্গে সম্পৃক্ততা ও সহযোগিতার অভিযোগে কুয়েতের দুই পার্লামেন্ট সদস্য সাদাউন হামাদ ও সালাহ খুরশিদ, জ্যেষ্ঠ সেনা কর্মকর্তা মেজর জেনারেল শেখ মাজন আল-জারাহসহ মোট ১৩ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ আনা হয়েছিল। পরে চারজনকে অভিযোগ থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর
Design and Developed by DONET IT
SheraWeb.Com_2580